সমগ্র বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতা হয়ে থাকে। ক্রীড়ার ক্ষেত্রে ও প্রতিযোগিতা হয়ে থাকে। আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন দেশের সমন্বয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা হয়ে থাকে বিভিন্ন খেলার। এই সকল প্রতিযোগিতায় থাকে বিভিন্ন ধরনের পুরষ্কার। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছিল এশিয়ান গেমস। এই গেমসে অনেক দেশের বিভিন্ন ধরনের খেলোওয়ার ছিল। এবং এই সকল খেলোওয়ারদের মাঝে প্রতিযোগিতা হয় ও বিজয়ী খেলোওয়ারদের মাঝে পুরষ্কার প্রদান করা হয়ে থাকে।
আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একের পর এক সাফল্যের জন্য বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ল্যান্স নায়েক পদে পদোন্নতি করা হয়েছে আর্চার মো. রোমান সানাকে। ১৩তম এশিয়ান গেমসে আনসারের ক্রীড়া দলের পদক জয়ীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এই ঘোষণা দেয়া হয়। মঙ্গলবার রাজধানীর খিলগাঁওয়ে আনসারের সদর দপ্তরে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন মহাপরিচালক. মেজর জেনারেল কাজী শরীফ কায়কোবাদসহ বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ সময় নেপালে অনুষ্ঠিত এশিয়ান গেমসে পদক জয়ী আনসার সদস্যদের প্রাইজমানিও দেয়া হয়। এবারের এশিয়ান গেমসে ৮টি সোনা, ১৩টি রূপা ও ৪৭টি ব্রোঞ্জ পদক আদায় করে আনসার বাহিনীর ক্রীড়া দল।

গেল বছর নেদারল্যান্ডসে বিশ্ব আর্চারি চ্যাম্পিয়নশিপে রোমান সানা ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিকে খেলার সুযোগ করে নিয়েছিলেন। বাংলাদেশের এই তারকা তীরন্দাজ সম্প্রতি বিশ্ব আর্চারি ফেডারেশন কর্তৃক ২০১৯ সালের জন্য বিশ্বসেরা আর্চার হিসেবে বছরের সেরা নির্বাচনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা করে নেন। কয়েকদিন আগেই বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের (বিএসপিএ) বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ ও দর্শকের ভোটে পপুলার চয়েজের পুরস্কার জিতেছেন রোমান সানা। ২০১৯ সালে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে ১৪টি পদক নিজের করে নেন খুলনায় জন্ম নেয়া এই আর্চার।

উল্লেখ্য, বর্তমান সময়ে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এবং বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনের মধ্য দিয়ে অর্জন করছে অনেক সফলতা এবং সম্মাননা। এই সম্মাননার মধ্য দিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ পাচ্ছে বিশেষ মর্যাদা। এবং সমগ্র বিশ্বে জুড়ে অর্জন করছে পরিচিতি। এবং বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবেও স্বীকৃতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।