বিশ্বে বিভিন্ন দেশে অনেক ধরনের প্রতিযোগিতা হয়ে থাকে। ক্যারম খেলার প্রতিযোগিতাও হয় বিশ্ব জুড়ে। বাংলাদেশীরা এই খেলায় অংশ গ্রহন করে থাকে। বর্তমান বিশ্বের সাথে সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করে বাঙালিরা পাচ্ছে অনেক সাফল্য। এই সাফল্য দেশের জন্য গৌরবের এবং সম্মানের।
ইন্টারন্যাশনাল ক্যারম কাপ টুর্নামেন্টের ৮ম আসরে তৃতীয় স্থানে থেকে শেষ করেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্যারম দল। আর প্রথম বাংলাদেশি খেলোয়াড় হিসেবে হেমায়েত মোল্লা বিশ্ব ক্যারম র‍্যাংকিংয়ে পঞ্চম স্থান অর্জন করেছেন। সাবেক ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ন শ্রীলংকার নিশান্ত ফার্নান্দোকে ২-১ সেটে হারিয়ে নিজের গড়া রেকর্ড নিজেই ভাঙেন হেমায়েত। এর আগে তিনি সপ্তম স্থানে ছিলেন।

ভারতের পুনেতে ১৬টি দেশের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয় আইসিএফ ক্যারম কাপের আসর। এই আসরেই তৃতীয় স্থানে থাকা মালদ্বীপকে সরিয়ে নিজের জায়গা বুঝে নিয়েছেন হেমায়েত মোল্লারা।

বাংলাদেশ ক্যারম ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আহমেদ লিয়ন খেলোয়াড়দের এই পারফরম্যান্সে খুশি। তিনি জানান এমন পারফরম্যান্স তিনি খুশি। লিয়ন বলেন, আই সি এফ কাপে বাংলাদেশ তৃতীয় স্থান অর্জন করায় আমাদের আত্মবিশ্বাস আগের চেয়ে আরও বেড়ে গেছে। আমাদের ক্যারমকে সামনে এগিয়ে নিতে আত্মবিশ্বাস হিসেবে কাজ করবে এই জয়। সেমিফাইনালে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ভারতের সঙ্গে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে গেলেও ভালো খেলার সাহসিকতাই এমন সাফল্য এনে দিয়েছে। বাংলাদেশের প্রথম কোনো খেলোয়াড় হিসেবে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন নিশান্ত ফার্নান্দোকে হারিয়ে বিশ্ব ক্যারমে পঞ্চম স্থান অধিকার করেছে হেমায়েত মোল্লা। এটা বাংলাদেশের জন্য বড় একটা অর্জন। আশা করি এই ধারাবাহিকতা অব্যহত থাকবে।

বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের খেলা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। ফুটবল, ক্রিকেট, দাবা ইত্যাদি খেলা গুলো যেমন প্রচলিত এবং জনপ্রিয় তেমনি ভাবে জনপ্রিয় বিস্তার লাভ করেছে এই ক্যারম খেলা। ভারতের প্রায় দুই শত বছর আগে এই খেলার প্রচলন ঘটে। এশীয় মাহাদেশের একটি জনপ্রিয় খেলার মধ্য একটি ক্যারম খেলা।