লাল সবুজের পতাকা দেশের সীমানা পেড়িয়ে এখন পৃথিবী জুড়ে। সাকিব, তামিম, মুশফিক এখন এ ক্রিকেটের জন্মের দেশে অনেকেরই পছন্দের। ব্রিটেনের সংসদে এখন নিয়মিত বাংলাদেশের ক্রিকেটের প্রশংসা ঝড়ছে। দেশটির মন্ত্রীরা টাইগার ক্রিকেটের মুগ্ধ হয়েছে। যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সৈয়দা মুনা তাসনিম এমনটাই বলে জানিয়েছেন। তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাজ্যে সরকারি সফরে এসে অনেক ইংলিশদের মধ্যে প্রেম দেখে মুগ্ধ। আর সেমিফাইনালে উঠতে না পারলেও,টাইগাররা বিশ্ব ক্রিকেটে পারফরমেন্স দিয়ে মন জয় করেছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ। তবে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স ছিল দুর্দান্ত। বাংলাদেশ হাই কমিশনের সাংবাদিকদের মত বিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তারা।

এ সময় হাসান মাহমুদ ’বাংলাদেশ টিম অত্যন্ত ভাল খেলেছে। সেমিফাইনালে খেলতে পারা, না পারা অন্য ব্যাপার। তবে তারা অনেক ম্যাচে জিতেছে এবং যেগুলোতে হেরেছে সেগুলোও অনেক হার্ড লড়াই করেছে। আমরা একসময় সেমি নয় ফাইনালও খেলবো।’

মাঠ ও মাঠের বাইরে ইংলিশদের মাঝে অনেক সমর্থক দেখা গেছে। তবে এবার বার্মিংহামের প্যালেস থেকে ব্রিটিশ সংসদের মন্ত্রীরাও মাশরাফি, সাকিবের বন্দনায় মেতেছেন।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুনা তাসনিম যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত তিনি বলেন, কমনওয়েলথের একজন সদস্যের বোর্ড অব গভর্নর মেম্বার হিসেবে আমি যে জায়গাতেই গেছি, সব জায়গায় আমাদের টাইগারদের প্রশংসা শুনেছি। এটা খুবই আনন্দপূর্ণ ছিল। হাই কমিশনার থেকে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট আমি যেখানে গেছি, সবখানেই বাংলাদেশ টক অব দ্যা টাউন। তারা টাইগারদের ভয় পায়। প্রথমবারের মত ৯ থেকে ১২ জুলাই লন্ডনে
শুরু হচ্ছে আন্তঃ সাংসদীয় ক্রিকেট বিশ্বকাপ। বাংলাদেশর নাঈমুর রহমান দুর্জয়ের দল ও আছে এখানে।