বিশ্বে দেশের সংখ্যা নিতান্ত কম নয়। তবে সব দেশের আকার-আয়তন কিন্তু এক নয়। কোনো দেশ আবার বড় কোনো শহরের মতো। ‍আবার এমন অনেক দেশ রয়েছে যে ১০টি দেশ মিলে একটি দেশের সমান। আজ আমরা জেনে নেব বিশ্বের সবচেয়ে ছোট পাঁচটি দেশ সম্পর্কে।
ভ্যাটিকান সিটি
বিশ্বের সবচেয়ে ছোট দেশটির নাম ভ্যাটিকান সিটি। এর আয়তন মাত্র ০.১৭ বর্গমাইল (০.৪৪ বর্গকিলোমিটার)! ২০১৪ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী এ দেশের জনসংখ্যা ৮৪২। ভ্যাটিকান সিটির জন্ম হয়েছিল ১৯২৯ সালে। পুরো দেশটির দেখভাল করেন একজন পোপ। তিনিই দেশ পরিচালনা করেন। এ দেশের ভাষা মূলত ইটালিয়ান ও ল্যাটিন। সবচেয়ে মজার কথা হলো, ভ্যাটিকান সিটিতে কোনোকিছুর উপরে কোনো ট্যাক্স দিতে হয় না!

মোনাকো
পৃথিবীর দ্বিতীয় ক্ষুদ্রতম দেশ মোনাকো। দেশটির আয়তন ১.৯৬ বর্গকিলোমিটার বা ০.৮ বর্গমাইল। ২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী মোনাকোর জনসংখ্যা ৩৬,৩৭১।

নাউরু
নাউরুর আয়তন ৮ বর্গমাইল (২১ বর্গকিলোমিটার)। ২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী এর জনসংখ্যা ৯,৩৭৮। এটি পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম দ্বীপরাষ্ট্র। ও হ্যাঁ, নাউরুতে কিন্তু কোনো রাজধানী নেই।

টুভ্যালু
এই দেশটির আয়তন ৯ বর্গমাইল (২৬ বর্গকিলোমিটার)। ২০১২ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী এর জনসংখ্যা ১০৮৩৭। টুভ্যালুও একটি দ্বীপরাষ্ট্র। বর্তমানে এই রাষ্ট্র অস্তিত্ব হারানোর আশংকা রয়েছে। সমুদ্রের পানি বাড়তে থাকলে আগামী ৫০ বছরের মধ্যেই সমুদ্রগর্ভে হারিয়ে যাবে টুভ্যালু।

সান মারিনো
এ দেশের আয়তন ২৪ বর্গমাইল (৬১ বর্গকিলোমিটার)। ২০১২ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশটির জনসংখ্যা ৩২,৫৭৬। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে পুরনো প্রজাতন্ত্র। ৩০১ খ্রিষ্টাব্দে মারিনো নামে এক ব্যক্তি এবং তার সঙ্গে থাকা কিছু লোক এই স্থানটি খুঁজে পান।

সূত্র:deshebideshe