শিশুকে অদ্ভুত কায়দায় স্তন্য দানের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, এক মা তার পা দুটি আকাশের দিকে ও মাথা মাটিতে রেখে একটি বিশেষ আসনে আছেন। এমন অবস্থায় তার এক বছরের শিশুটি মায়ের স্তন পান করছে। এ ঘটনার ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে মুহূর্তেই হাজার হাজার লাইক ও শেয়ার হয়ে যায়।
অদ্ভুত কায়দায় স্তন্য দানকারী ওই নারীর নাম মোট্টাজুইস। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করেন। সম্প্রতি তিনি তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ভিডিওটি শেয়ার করলে তা নিয়ে হৈ চৈ পড়ে যায়।

ভিডিওতে দেখা যায়, মোট্টাজুইস তার মাথা মাটিতে ও পা উপরে করে বিশেষ আসনে রয়েছেন। পাশেই বসে আছে তার এক বছরের কন্যাশিশু। সে বসে মনের আনন্দে মায়ের স্তন পান করছে। ভিডিওটির শেষ দিকে দেখা যায়, শিশুটি কোনোভাবে বুঝতে পারে, তার ও তার মায়ের ভিডিও ধারণ করা হচ্ছে। তাই সে ক্যামেরার দিকে হাত নেড়ে কি যেন বলতে চাচ্ছে।
ভিডিওটি দেখার পর অস্ট্রেলিয়ার এক নারী তার ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করে অন্য মায়েদের মতামত জানতে চেয়েছেন। সেখানে অনেকেই মতামত দিয়েছেন। কেউ সেই ইয়োগা মাকে তার ইয়োগা প্র্যাকটিসের জন্য সাধুবাদ জানিয়েছেন। আবার কেউ তার উদ্ভট কাণ্ডের জন্য সমালোচনা করেছেন।

বিরক্তি প্রকাশ করে সেয়ান নেইলে নামের একজন কমেন্ট করেছেন, ‘এটি করার সময় ও স্থান আছে। যদি তিনি তার বসে থাকা বাচ্চাটির উপর পড়ে যান তাহলে কী হবে? তিনি শুধু মানুষের প্রতিক্রিয়া জানার জন্য এটি করছেন।’ অর্থাৎ তিনি বোঝাতে চেয়েছেন মা যা করছেন তার মোটেও ঠিক নয়। জনসমক্ষে শিশুকে স্তন পান করানো তিনি পছন্দ করেননি।