বর্তমান ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ। পর পর তিন বার তারা জনগনের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত এবং এই ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশের সরকারের দায়িত্ব পালন করছে। ওবায়দুল কাদের আওয়ামীলীগ দলের একজন রাজনৈতিক নেতা। তিনি ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতির সাথে যুক্ত। এছাড়াও তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রলায়ের দায়িত্ব পালন করছেন।
বিএনপি দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিজেরাই ককটেল মেরে রাজনৈতিক ফায়দা লোটার চেষ্টা করেছে কি না- এমন সন্দেহ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সোমবার রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নিজের এমন সন্দেহের কথা জানান তিনি। বিএনপি অফিসের সামনে বিস্ফোরণ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি অফিসের সামনে কারা ককটেল মেরেছে এটি তারাই ভালো জানে। এমন হতে পারে বিএনপি রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য নিজেরাই ককটেল মেরেছে।

তিনি বলেন, এখন আমি আমার অফিসের সামনে বোমা মেরে যদি বলি এটি বিরোধী দল করেছে। সেটি বলা তো খুব সহজ বিষয়।
সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে দলের প্রার্থীর বিষয়েও কথা বলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। বলেন, আমরা গ্রহণযোগ্য ও বিজয়ী হতে পারবে এমন প্রার্থী দিয়েছি। সে ক্ষেত্রে আগের মেয়র খারাপ কি ভালো সেসব প্রসঙ্গে আমি যেতে চাই না। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের জন্য আমরা গ্রহণযোগ্য প্রার্থী বেছে নিয়েছি বিভিন্ন জরিপের মাধ্যমে। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই পদ্মা সেতু চালু করা হবে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, পদ্মা সেতুতে মঙ্গলবার ২০তম স্প্যানে অবকাঠামো বসবে এবং এখন থেকে প্রতি মাসে তিনটি করে স্প্যান পদ্মা সেতুতে সংযুক্ত হবে। ২০২০ সালের জুলাই মাসের মধ্যে সেতুর সবগুলো স্প্যানে কাঠামো বসানোর কাজ শেষ হবে। এই লক্ষ্য পূরণ হলে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া যাবে পদ্মা সেতু। এর আগে সেতু ভবনে মন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নোয়াকি।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের রাজনৈতিক একটি দল বিএনপি। বর্তমান সময়ে নানা ভাবে সংকটের মধ্য রয়েছ এই দল। বহু দিন ধরে তারা রয়েছে ক্ষমতার বাইরে। এমনকি দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দূর্নীতির দায়ে কারাগারে বন্দী। এই দলকে সঠিক ভাবে পরিচালিত করার জন্য এবং শক্তিশালী ও সমৃদ্ধ করার জন্য নানা ভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিএনপি দলের নেতাকর্মীরা।