মানবধিকার কর্মী সুলতানা কামাল বলেন, রক্ষকই ভক্ষক হয়ে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে পুলিশ, শিক্ষক এবং সমাজের যারা প্রভাবশালী তাদের ভূমিকা দেখছি। কি করে বিচার হবে। আমরা বিচারহীনতার সংস্কৃতির মধ্যে ঢুকে পড়েছি।
মঙ্গলবার সময় টিভির সম্পাদকীয় ’বুলেটিন’ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, যেটা বলা হচ্ছে মূল্যবোধের অবক্ষয়। একটা দেশকে সঠিক পথে পরিচালিত করতে রাজনীতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আমাদের রাজনীতিতে মূল্যবোধের সাংঘাতিক অবক্ষয় ঘটেছে। যেটা আমাদের সমাজ এবং পরিবারকে সংক্রামিত করছে।

সুলতানা কামাল বলেন, বর্তমানে বিদ্যালয়গুলোতে মেয়েরা যৌন হয়রানির শিকার। এ হয়রানিতে ছলে শিশুরাও ভুক্তভোগী। এ সমস্ত বিষয়ের দায়িত্বরতরা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেন না।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে আইনের শাসনকে ভীষনভাবে বাধাগ্রস্ত করা হচ্ছে। যারা এটা করছেন তারা কোনো না কোনোভাবে ক্ষমতার সাথে সম্পৃক্ত। অন্যায়ের বিচার হতে হলে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে প্রথমে থাকছে পুলিশ। পুলিশ যদি নিরপেক্ষভাবে কাজ না করে তাহলে আমরা আমাদের গন্তব্যে কখনোই পৌঁছাতে পারবো না।

সূত্র:amadershomoy