এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ’মারুথা’। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হয়েছে একটি শক্তিশালী নিম্নচাপ। সৃষ্টি গভীর নিম্নচাপটি ধীরে ধীরে শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড় হয়েই ধেয়ে আসছে স্থলভাগের দিকে। আর এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়া হয়েছে ’’মারুথা’। নিম্নচাপের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর খুবই উত্তাল।
চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। রোববার (১৬ এপ্রিল) সকালে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সতর্কতা জারি করে।
আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়ে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও আশপাশের এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ’মারুথা’ আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে একই অঞ্চলে অবস্থান করছে। এটি আরও ঘণীভূত হয়ে উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে। তাই পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে দুই নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।
আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সূত্র:লেটেস্টবিডিনিউজ.কম

উত্তাল বঙ্গোপসাগর: ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় 'মারুথা'
Logo
Print


 

এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ’মারুথা’। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হয়েছে একটি শক্তিশালী নিম্নচাপ। সৃষ্টি গভীর নিম্নচাপটি ধীরে ধীরে শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড় হয়েই ধেয়ে আসছে স্থলভাগের দিকে। আর এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়া হয়েছে ’’মারুথা’। নিম্নচাপের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর খুবই উত্তাল।
চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। রোববার (১৬ এপ্রিল) সকালে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সতর্কতা জারি করে।
আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়ে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও আশপাশের এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ’মারুথা’ আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে একই অঞ্চলে অবস্থান করছে। এটি আরও ঘণীভূত হয়ে উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে। তাই পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে দুই নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে।
আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সূত্র:লেটেস্টবিডিনিউজ.কম

Template Design © Joomla Templates | GavickPro. All rights reserved.