বাংলাদেশের বেশিরভাগ মেয়েরই ১৮ বছর বয়স হওয়ার আগে বিয়ের জন্য চাপ দেওয়া হয়। রুনা আখতারের বয়স যখন মাত্র ১৩ বছর তখনই তার বাবা-মা তাকে তার থেকে দ্বিগুণ বয়সের এক প্রবাসী ব্যক্তির সাথে বিয়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেয়। সবে মাত্র সপ্তম শ্রেণিতে পড়া এবং খেলাপ্রিয় মেয়েটি বিয়ের জন্য তার বয়স ২১ বছর হওয়া অব্দি অপেক্ষা করতে চেয়েছিল।

তাড়াতাড়ি বিয়ে করার পরিণতিও নাটকীয়। বেশিরভাগ মেয়েই স্কুল থেকে ঝরে পড়ে। আর বয়স ১৫ হওয়ার আগেই গর্ভবতী হওয়া মেয়েগুলো সন্তান জন্ম দেওয়ার সময় মারা যাওয়ার সমুহ সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু অন্যদিকে ২০ বা তদুর্ধ্ব বয়সে বিয়ে হওয়া নারীদের ক্ষেত্রে সন্তান জন্ম দেওয়ার সময় এ ঝুঁকি থাকে না।

কিন্তু তার বা-মায়ের ভাবনা ভিন্ন ছিল। তার মায়ের ভাষ্য অনুযায়ী, রুনার বিবাহ তাকে রক্ষা করবে। তিনি বলেন, ’মেয়ের বয়স কম হওয়ায় তার স্বামীকে কনডম পরার কথা বলেছিলাম আমি।’ বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে।