সকলের প্রেমজীবন চিরকাল এক রকম যায় না। কখনও জোয়ারের মতো তা আবেগে, ভালবাসায় ফুলে ওঠে। কখনও আবার ভাটার মতো তাতে আসে প্রেমহীনতার টান। সেই রকমই প্রেমহীনতায় আক্রান্ত এক যুগলের কাহিনি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও মারফত।
জানা গিয়েছে, ভিডিও-টি চিনের এক দম্পতির। বেশ কিছু দিন ধরেই কোনও কারণে স্বামী সন্দেহ করছিলেন, তাঁর স্ত্রী অন্য কারোর সঙ্গে সম্পর্কে লিপ্ত। যে সময়ে তিনি বাড়িতে থাকতেন না, সেই সময়ে অন্য কারো সঙ্গে লিপ্ত হচ্ছেন তাঁর স্ত্রী— এমনটাই মনে হত তাঁর।

অন্য কারোর সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্কের পরোক্ষ ইঙ্গিতও পেয়েছিলেন। বিষয়টা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ার জন্য তিনি বাড়ির বসার ঘরে গোপনে বসিয়ে নিলেন একটি সিসিটিভি। আর সেই গোপন ক্যামেরায় যে ফুটেজ ধরা পড়ল, তা রীতিমতো চোখ কপালে তোলার মতো।

রেকর্ডেড ভিডিওটির প্রথমে দেখা যাচ্ছে, স্বামী কাজে বেরনোর জন্য তৈরি হচ্ছেন। ঘরে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী এবং বাড়ির পরিচারিকা। স্বামী কাজের মেয়েটিকে কিছু নির্দেশ দিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন বাড়ি থেকে। তার পর দু’টি মেয়েতে মিলে জানলায় নজর রাখছেন, ভদ্রলোক কত দূর গিয়েছেন।

যখন তাঁরা বুঝছেন যে, রাস্তা পরিষ্কার, আনন্দে লাফিয়ে উঠছেন দু’জনে। কিন্তু তার পর এই দৃশ্যে কোনও পুরু‌ষের প্রবেশ ঘটছে না। বরং দু’টি মেয়ে একে অন্যকে জড়িয়ে ধরছেন। পরস্পরকে আবেগভরে চুমু খেতে শুরু করছেন তাঁরা।

তার পর কী ঘটছে, তা স্পষ্ট জানা যাচ্ছে না। কারণ ভিডিও-টি থামিয়ে দিয়ে দর্শককে জানানো হচ্ছে, এর পর ৪০ মিনিট কেটে গিয়েছে। এই ৪০ মিনিটে কী ঘটেছে তা অজানা। কিন্তু যখন আবার ফুটেজটি চালু হচ্ছে তথন স্ত্রী-টিকে আর দেখা যাচ্ছে না। বরং কাজের মেয়েটি দেখা যাচ্ছে, তার প্যান্ট পরছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও। সেই সঙ্গে ওই অ-দেখা ৪০ মিনিটে দুই তরুণী ঠিক কী করেছিলেন, সেই নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। কেউ কেউ বলছেন, ভিডিও-তে স্পষ্ট যে, কোনও পুরুষ নয়, বরং ওই মহিলা আসলে বাড়ির পরিচারিকার সঙ্গেই সমকামী সম্পর্কে লিপ্ত। কাজেই বোঝা যাচ্ছে, নিজের সঙ্গী বা সঙ্গিনী সম্পর্কে আমরা যা ভাবি, সব সময়ে তা ঠিক হয় না।

কেউ আবার নারী-অধিকার সম্পর্কে সওয়াল তুলে দাবি করছেন, এক জন স্বামীর কোনও অধিকারই নেই, তাঁর স্ত্রী-র উপর এ ভাবে নজর রাখার। আর এক দল মানুষের বক্তব্য, এটা কোনও অরিজিনাল ভিডিওই নয়, সবটাই সাজানো। ভিডিও-এ যাঁদের দেখা যাচ্ছে, তাঁরা সকলেই অভিনেতা-অভিনেত্রী। নতুবা এক স্বামীর গুপ্ত ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় লিক হয়ই বা কী করে!